1. জলপাইগুড়ি :ধুপগুড়ি: অশোক মিত্র:বন্যপ্রাণী কে ঘিরে উল্লাসের বাতাবরণকে দেখে স্তম্ভিত

ধূপগুড়ি বাসি।


একটি অজগর কে কেন্দ্র করে কালিরহাট এলাকায় টিনেজারদের উন্মাদনায় দুর্বিষহ অবস্থাঃ একটি মধ্যবয়স্ক অজগরের। প্রতিদিনের মতো কৃষ্ণপদ রায় নামে এক কৃষক জমিতে কাজ করতে গেলে ভয়ঙ্কর এক আওয়াজ শুনতে পান। আওয়াজের খোঁজ করতে গিয়ে কৃষ্ণপদ রায় দেখতে পান ,এক বিশাল আকৃতির অজগর একটি মুরগি খেতে ব্যস্ত। মাগুর্মারী ১ নং, দক্ষিণ কাঠুরিয়া এলাকায় তারপরেই শুরু হয়  অজগর কে কেন্দ্র করে উৎসাহ।
সেই উৎসাহকে কেন্দ্র করে অজগরটিকে নিয়ে মেতে ওঠে স্থানীয় বাসিন্দারা। স্থানীয় এক বাসিন্দার অভিযোগ-অজগর সাপ টিকে গলা চিপে চলতে থাকে সেলফি নেবার প্রক্রিয়া ।  একের পর এক ছবি তুলতে ব্যস্ত থাকে এলাকার মানুষ জন। হাসিমুখে চলতে থাকে সেলফি। নিরীহ প্রাণীটির উপর চলতে থাকে রীতিমতন হেনস্তা।
 এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে  ক্ষোভে ফেটে পড়েন পশুপ্রেমী মানুষজন। পরবর্তী সময়ে কালিরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষকের তৎপরতায় সাপটিকে কোনক্রমে উদ্ধার করা হয়। অজগরটিকে তুলে দেওয়া হয় ধুপগুড়ি এলাকার বিশিষ্ট সর্প বিশেষজ্ঞ মিন্টু মিয়ার হাতে।